খেলাধুলা

চ্যাম্পিয়ন্স লিগে সেমিফাইনাল জয়ের লক্ষ নিয়ে রোমে লিওনেল মেসিরা

নরসুন্দা ডটকম   April 10, 2018
চ্যাম্পিয়ন্স লিগে লিওনেল মেসিরা

চ্যাম্পিয়ন্স লিগে শেষ বার এএস রোমা সেমিফাইনালে গিয়েছিল সেই ১৯৮৪ সালে। তার পরে আর শেষ চারে যাওয়া হয়নি তাদের। এ বার কোয়ার্টার ফাইনালে প্রথম পর্বে বার্সেলোনার ঘরের মাঠ ক্যাম্প ন্যু-তে ১-৪ হেরে গিয়েছে ইতালির দলটি।

মঙ্গলবার রাতে দ্বিতীয় পর্বে তিন গোলের ব্যবধান অতিক্রম করে ইতালির দলটির পক্ষে শেষ চারে যাওয়া কি সম্ভব?ম্যাচের চব্বিশ ঘণ্টা আগেই যার উত্তরে ইতালির বিশ্বকাপজয়ী প্রাক্তন ফুটবলার ব্রুনো কন্তে বলছেন, ‘‘কাজটা খুব কঠিন। বিপক্ষ দলে রয়েছে বিশ্বের অন্যতম সেরা ফুটবলার মেসি। ও একাই যে কোনও দলকে হারিয়ে দিতে পারে।’’

যাঁকে নিয়ে এত কথা, সেই লিওনেল মেসি ইতিমধ্যেই লা লিগায় ২৯ গোল করে একই বিন্দুতে দাঁড়িয়ে ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের সর্বোচ্চ গোলদাতা লিভারপুলের মহম্মদ সালাহ-র সঙ্গে। এই দু’জনের আগে রয়েেছন পর্তুগিজ লিগে বেনফিকার হয়ে সর্বোচ্চ (৩৩) গোলদাতা জোনাস। মেসি অনুরাগীদের আশা, চ্যাম্পিয়ন্স লিগে সেমিফাইনালে যাওয়ার আগেই জোনাস-কে পিছনে ফেলে দেবেন তাঁদের স্বপ্নের নায়ক।

সব ধরনের প্রতিযোগিতা মিলিয়ে শেষ ২০ ম্যাচে হারেনি বার্সেলোনা। ঠিক তেমনই শেষ তিন ম্যাচে গোলও হজম করতে হয়েছে আর্নেস্তো ভালভার্দের দলকে। যা স্বস্তি দিচ্ছে রোমা ম্যানেজার ইউসেবিও দে ফ্রান্সিসকো-কে। রোমার হয়ে প্রথম পর্বের ম্যাচে খেলা দিয়েগো পেরোত্তি ‘কাফ মাসল’-এ চোট পাওয়ায় এই ম্যাচে অনিশ্চিত। তাই রোমা ম্যানেজার বার্সেলোনার বিরুদ্ধে খেলাতে পারেন ৪-১-৪-১ ছকে। সামনে একমাত্র স্ট্রাইকার এডেন জেকো। যিনি গোল করে ব্যবধান কমিয়েছেন প্রথম পর্বের ম্যাচে। অন্য দিকে, বার্সালোনা শিবিরের চিন্তা সের্জিও বুস্কেৎসের চোট। তাঁর খেলার সম্ভাবনা কম।

এরই মাঝে অভিযোগ উঠছে বার্সেলোনার বিরুদ্ধে। প্রথম পর্বের ম্যাচে ক্যাম্প ন্যু-এ বার্সা সমর্থকরা নাকি মাঠে কিছু ছুড়েছিলেন। যা উয়েফার শৃঙ্খলাভঙ্গের আওতায় পড়ে। অভিযোগ আসার পরেই তা নিয়ে তদন্ত শুরু করেছে ফুটবলের নিয়ন্ত্রণ সংস্থা উয়েফা।এ সবের মাঝেই সোমবার সকালে ইতালির রাজধানী রোমে পৌঁছে যান বার্সেলোনার সুপারস্টার লিওনেল মেসি, লুইস সুয়ারেস, আন্দ্রে ইনিয়েস্তারা।

প্রথম পর্বের ম্যাচে রোমার হয়ে এই ম্যাচে খেলেননি মিডফিল্ডার রাদয়া নেইনগোলান। এ বার তিনি দলে ফিরছেন। রোমা ম্যানেজার বলছেন, ‘‘নেইনগোলান দুরন্ত প্রতিভা। এ বার নিজেকে চেনাতে হবে ওকে।’’ আর ফুটবলারটি নিজে বলছেন, ‘‘একটা স্বপ্নের ম্যাচ খেলার অপেক্ষায় রয়েছি। বার্সেলোনা গোলের সামনে গিয়ে সুযোগ নষ্ট করা চলবে না। যা প্রথম পর্বে যে ভুল হয়েছিল আমাদের খেলায়।’’

About the author

নরসুন্দা ডটকম