দেশ-বিদেশ

আবার গোপনে চীন সফর করলেন কিম জং উন

নরসুন্দা ডটকম   May 9, 2018
গোপনে চীন সফর

চীনের প্রেসিডেন্ট সি চিন পিং ও উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং-উন ফের বৈঠক করেছেন। এক আকস্মিক সফরে চীনে গিয়ে সি চিন পিংয়ের সঙ্গে দুই দফা বৈঠক করেছেন কিম। তবে বৈঠকে দুই নেতার মধ্যে কী নিয়ে আলোচনা হয়েছে, তা জানা যায়নি।

উত্তর কোরিয়ার নেতার চীন সফর সম্পর্কে দুই দেশের কোনো আনুষ্ঠানিক বিবৃতি পাওয়া যায়নি। তবে চীনের সংবাদমাধ্যমগুলো এ খবর নিশ্চিত করেছে। বার্তা সংস্থা রয়টার্সও এ খবর নিশ্চিত করেছে।কিছুদিন আগেই উত্তর ও দক্ষিণ কোরিয়ার রাষ্ট্রপ্রধান একসঙ্গে বৈঠক করেছেন।

গত ২৭ এপ্রিল দুই দেশের সীমান্তবর্তী গ্রাম পানমুনজমে উত্তর ও দক্ষিণ কোরিয়ার নেতাদের মধ্যে বৈঠক হয়। কোরীয় উপদ্বীপকে পারমাণবিক অস্ত্রমুক্ত করতে একমত হয় দুই কোরিয়া। এ ছাড়া ১৯৫৩ সালের কোরীয় যুদ্ধের পর থেকে জারি থাকা যুদ্ধবিরতিকে একটি শান্তিচুক্তিতে রূপান্তরিত করার বিষয়েও মতৈক্যে পৌঁছান তাঁরা।

সাউথ চায়না মর্নিং পোস্টের খবরে বলা হয়েছে, চীনের বন্দর নগর দালিয়ানে গতকাল সোমবার ও আজ মঙ্গলবার বৈঠক করেছেন কিম ও সি চিন পিং। বলা হচ্ছে, উড়োজাহাজে করে দালিয়ানে পৌঁছান কিম জং-উন। তাঁর সঙ্গে ছিলেন উত্তর কোরিয়ার শীর্ষ নেতারা। দালিয়ান শহরে চীন নিজেদের তৈরি প্রথম বিমানবাহী জাহাজের উদ্বোধন করবে। এ জন্য আয়োজিত অনুষ্ঠানেও যোগ দেবেন সি চিন পিং।

কিম জং-উন খুব কম সময়ই উড়োজাহাজে ভ্রমণ করেন। বেশির ভাগ ক্ষেত্রেই এ ধরনের সফরের খবর গোপন রাখা হয়। সাধারণত সফর শেষ হওয়ার পরই রাষ্ট্রীয়ভাবে এর খবর জানানো হয়।

মে মাসের শেষের দিকে বা জুনের প্রথম সপ্তাহে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্টের সঙ্গে কিম জং-উনের বৈঠক হওয়ার কথা রয়েছে। মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গে সেই বৈঠক সামনে রেখেই চীন ও উত্তর কোরিয়ার শীর্ষ নেতারা বারবার বৈঠকে বসছেন বলে ধারণা করা হচ্ছে। দুই কোরিয়ার দ্বিপক্ষীয় সম্পর্ক নিয়েও বৈঠকে আলোচনা হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

গত মার্চ মাসে বেইজিং সফর করেছিলেন উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং-উন। সেটি ছিল তাঁর প্রথম আন্তর্জাতিক সফর। বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমের প্রতিবেদনে বলা হচ্ছে, আগামী মাসে পিয়ংইয়ং সফরে যেতে পারেন চীনের প্রেসিডেন্ট সি চিন পিং।

About the author

নরসুন্দা ডটকম