দেশ-বিদেশ

আবারও ব্রেক্সিট চুক্তি প্রত্যাখ্যান করল ব্রিটিশ সাংসদেরা : হারলেন টেরিজা মে

নরসুন্দা ডটকম   মার্চ ১৩, ২০১৯
আবারও ব্রেক্সিট চুক্তি প্রত্যাখ্যান করল ব্রিটিশ সাংসদেরা
Spread the love
  • 5
    Shares

সমঝোতার ভিত্তিতে ইউরোপীয় ইউনিয়নের (ইইউ) সঙ্গে বিচ্ছেদ কার্যকর করতে প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে যে চুক্তি সম্পাদন করেছেন, সেটি আবারও প্রত্যাখ্যান করেছেন ব্রিটিশ আইনপ্রণেতারা।

মঙ্গলবার স্থানীয় সময় সন্ধ্যা ৭টা থেকে অনুষ্ঠিত ভোটাভুটিতে ৩৯১ জন আইনপ্রণেতা চুক্তিটির বিপক্ষে ভোট দিয়েছেন। আর পক্ষে ভোট দিয়েছেন ২৪২ জন।

চুক্তিটি পাস না হওয়ার কারণে প্রায় দুই বছর ধরে চলা সমঝোতার মাধ্যমে বিচ্ছেদ কার্যকরের সব চেষ্টাই আপাত ব্যর্থ হলো। আরও দীর্ঘায়িত হলো ব্রেক্সিট নিয়ে অনিশ্চয়তা।

চুক্তি হোক বা না হোক, আগামী ২৯ মার্চ ইইউ’র সঙ্গে যুক্তরাজ্যের বিচ্ছেদ কার্যকর হওয়ার কথা রয়েছে। কিন্তু সংসদের প্রধান বিরোধী দল লেবার পার্টি অন্য দলগুলোর পক্ষ থেকে বিচ্ছেদের সময়সীমা পিছিয়ে দেওয়ার জোরালো দাবি উঠেছে। এসব দল মে’র ব্রেক্সিট চুক্তি সমর্থন করেনি।

আরো পড়তে পারেন…

তবুও ইনিংস ও ১২ রানের ব্যবধানে হারতে হলো বাংলাদেশকে

বিশিষ্ট সাংবাদিক আবেদ খান পিআইবি’র চেয়ারম্যান নিযুক্ত

নারী ফুটবল বিশ্বকাপ ২০১৯ এর পোস্টার উন্মোচন

সবচেয়ে লক্ষণীয় ব্যাপার হলো ক্ষমতাসীন কনজারভেটিভ দলের কট্টর ব্রেক্সিটপন্থী বলে পরিচিত ‘ইউরোপিয়ান রিসার্চ গ্রুপ’ এবং সরকারের অংশীদার ডেমোক্র্যাটিকস ইউনিয়নিস্ট পার্টির (ডিইউপি) আইনপ্রণেতারাও এই চুক্তিতে সমর্থন দেননি। ক্ষমতাসীনদের কট্টর ব্রেক্সিটপন্থী এই অংশটি সম্পাদিত চুক্তির পরিবর্তে চুক্তি ছাড়াই বিচ্ছেদ কার্যকরের তোড়জোড় চালাচ্ছে। আগামী ২৯ মার্চ বিচ্ছেদ চান তাঁরা।

তবে লেবার পার্টি নেতা জেরেমি করবিন বলছেন প্রধানমন্ত্রীর এখন উচিত সাধারণ নির্বাচন ঘোষণা করা।

এবার নিজের রক্ষণশীল দলের ৭৫ জন তার প্রস্তাবের বিপক্ষে ভোট দিয়েছেন যে সংখ্যা প্রথমবারের ভোটের সময় ছিলো ১১৮।

এর আগে এমপিদের সতর্ক করে টেরিজা মে বলেছিলেন যে তার প্রস্তাবে সমর্থন না দিলে সেটি ব্রেক্সিট না হওয়ার ঝুঁকি তৈরি করতে পারে।

কিন্তু এতো কিছুর পরেও প্রয়োজনীয় সমর্থন পেতে ব্যর্থ হলেন তিনি।

About the author

নরসুন্দা ডটকম