মানুষ- সমাজ

দেশবন্ধুর গল্প

নরসুন্দা ডটকম   November 5, 2016

নরসুন্দা ডটকম ডেস্ক:

দেশবন্ধু চিত্তরঞ্জন দাশ একজন বাঙালি আইনজীবী এবং রাজনীতিবিদ।

১৮৭০ সালের ০৫ নভেম্বর তিনি জন্মগ্রহণ করেন।

তিনি স্বরাজ্য পার্টির প্রতিষ্ঠাতা।

তাঁর সময়ের অন্যতম বৃহৎ অঙ্কের আয় অর্জনকারী উকিল হওয়া সত্ত্বেও তিনি তাঁর সম্পদ অকাতরে সাহায্যপ্রার্থীদের কাছে বিলিয়ে দিয়ে বাংলার ইতিহাসে দানবীর হিসাবে সুপরিচিত হয়ে আছেন।

chittranjan-das-narashunda

চিত্তরঞ্জন দাশ বর্তমান মুন্সিগঞ্জ জেলার বিক্রমপুরের টঙ্গীবাড়ি উপজেলার তেলিরবাগ নামক গ্রামে  জন্মগ্রহণ করেন।

তাঁর পিতা ভুবন মোহন দাস কলকাতা হাইকোর্টের সলিসিটার ছিলেন। ভবানীপুর লন্ডন মিশনারি স্কুলে তার শিক্ষা আরম্ভ হয়। ১৮৯০ সালে প্রেসিডেন্সি কলেজ থেকে বি.এ. পাস করেন। প্রেসিডেন্সি কলেজে পড়ার সময়ই তিনি রাজনীতিতে যুক্ত হন।

কলেজজীবনে তিনি প্রেসিডেন্সি কলেজের সুরেন্দ্রনাথ প্রবর্তিত স্টুডেন্টস ইউনিয়নের সক্রিয় সদস্য হন। এক পর্যায়ে তিনি এই সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক হন।

বিদেশে থাকার ‌সময়ই রাজনৈতিক ব্যাপারে সক্রিয় ছিলেন এবং অনেক ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকাও পালন করেন। ১৮৯৩ সালে ব্যারিস্টারি পড়া শেষ করে দেশে ফিরে আইন পেশা শুরু করার সঙ্গে সঙ্গে রাজনীতিতেও পূর্বের চেয়ে বেশি সময় দেন।

১৮৯৪ সালে কলকাতা হাইকোর্টে ব্যারিস্টার হিসেবে নিজের নাম তালিকাভুক্ত করেন।

আইনি লড়াইয়ের মাধ্যমে দেশপ্রেমিক রাজনৈতিক নেতা–‌কর্মী ও বিপ্লবীদের ব্রিটিশদের অত্যাচার–‌নির্যাতন ও জেল–‌জুলুমের হাত থেকে বাঁচানো ছিল তাঁর প্রথম কাজ। আর দ্বিতীয় কাজ ছিল সরাসরি স্বদেশি রাজনৈতিক আন্দোলনের সঙ্গে যুক্ত থাকা এবং পরাধীন ভারতকে স্বাধীন করার জন্য কাজ করা।

১৯০৮ সালে অরিন্দম ঘোষের বিচার তাকে পেশাগত মঞ্চের সম্মুখ সারিতে নিয়ে আসে। তিনি এত সুনিপুণ দক্ষতায় মামলাটিতে বিবাদী পক্ষ সমর্থন করেন যে অরবিন্দকে শেষ পর্যন্ত বেকসুর খালাস দেয়া হয়। তিনি ঢাকা ষড়যন্ত্র মামলায় (১৯১০-১১) বিবাদী পক্ষের কৌশলী ছিলেন। তিনি দেওয়ানী ও ফৌজদারী উভয় আইনেই দক্ষ ছিলেন।

১৯২৩ সালে চিত্তরঞ্জন দাশ বাংলার জনসাধারণকে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার জন্য ব্যাপক ভাবে অনুপ্রাণিত করেন।

তিনি অসাম্প্রদায়িক রাজনীতির মুখ্য ‌প্রতিনিধি রূপে আত্মপ্রকাশ করেন এবং হিন্দু–‌মুসলমানের ঐক্যের লক্ষ্যে ‘‌বেঙ্গল প্যাক্ট’‌ নামে ঐতিহাসিক চুক্তি সম্পাদন করেন, যা বাংলার হিন্দু–‌মুসলমান নেতৃবৃন্দের মধ্যে ব্যাপক সাড়া জাগায়।

১৯২৩ সালে আইনসভা নির্বাচনে চিত্তরঞ্জন দাশের ‘‌স্বরাজ্য দল’ বাংলায় সংখ্যাগরিষ্ট আসনে জয়লাভ করে সর্বভারতীয় রাজনীতিতে একটি প্রকৃত অসাম্প্রদায়িক দল হিসেবে আত্মপ্রকাশ করে।

রাজনীতির মধ্যে থেকেও তিনি নিয়মিত সাহিত্যচর্চা করতেন। সে সময়ের বিখ্যাত মাসিক পত্রিকা ‘‌নারায়ণ’‌–‌এর প্রতিষ্ঠাতা সম্পাদক ছিলেন তিনি। ছিলেন ব্রাহ্ম জনমত’‌–‌এর সম্পাদক।

১৯৫২ সালের ১৬জুন চিত্তরঞ্জন দাশ মৃত্যুবরণ করেন।

উদার মতবাদ ও দেশের প্রতি দরদের কারণে তিনি হিন্দু মুসলমান সকলের শ্রদ্ধা ও ভালবাসা অর্জন করেন এবং তার এই উদার মতবাদের জন্য জনগণ তাকে দেশবন্ধু খেতাবে ভুষিত করেন।

সেই মানবদরদি মানুষটির আজ ১৪৬তম জন্মদিন।

 

 

 

About the author

নরসুন্দা ডটকম

Leave a Comment